কোচ জাভি হার্নান্দেসকে বরখাস্ত করলো বার্সেলোনা

কোচ জাভি হার্নান্দেসকে বরখাস্ত করলো বার্সেলোনা। মৌসুম শেষে বার্সেলোনা কোচের দায়িত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন জাভি হার্নান্দেস। এরপর অনেক চেষ্টা করে তার মন বদলাতে সক্ষম হয় বার্সা কর্তৃপক্ষ। চুক্তির মেয়াদ পূর্ণ করতে আরেক মৌসুম থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন এই স্প্যানিশ কোচ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাকে বরখাস্তই করা হলো।

শুক্রবার ক্লাবের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে জাভিকে বরখাস্তের ঘোষণা দিয়েছে বার্সেলোনা, দুই পক্ষের আলোচনার ভিত্তিতে ২০২৪-২৫ মৌসুমে জাভির আর কোচ হিসেবে না থাকার বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে। বার্সেলোনা জাভিকে কোচ হিসেবে তার কাজের জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছে। পাশাপাশি খেলোয়াড় এবং অধিনায়ক হিসেবে অনবদ্য ক্যারিয়ারের জন্যও তাকে ধন্যবাদ দিচ্ছে। জাভির ভবিষ্যতের জন্য শুভকামনা রইল।

 

কোচ জাভি হার্নান্দেসকে বরখাস্ত করলো বার্সেলোনা

 

কোচ জাভি হার্নান্দেসকে বরখাস্ত করলো বার্সেলোনা

বার্সেলোনার কিংবদন্তি খেলোয়াড় জাভি ক্লাবটির কোচ হিসেবে একটি লা লিগা এবং একটি সুপার কাপের শিরোপা জিতেছেন। গত জানুয়ারিতে স্প্যানিশ সুপার কাপ ও কোপা দেল রে থেকে বিদায়ের পর চাকির ছাড়ার ঘোষণায় জাভি বলেছিলেন, আমি ৩০ জুন চলে যাচ্ছি। একজন বার্সেলোনা-সমর্থক হিসেবে ক্লাবের ভালোর জন্যই আমার এই সিদ্ধান্ত। কেউ আমাকে বলেছিল, বার্সার স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন হতে। কিন্তু এটা অসম্ভব। বার্সায় এটা কখনো হবে না।

 

এ্যাথলেটিক্স খেলার আইন কানুন । খেলাধুলার আইন
গুগল নিউজে আমাদের ফলো করুন

 

জাভির এই ঘোষণার পরই কেন যেন মাঠের খেলায় ভালো করতে শুরু করে বার্সেলোনা। লা লিগায় টানা কিছু ম্যাচ জয়ের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটে উঠে যায় কাতালান ক্লাবটি। তাই জাভিকে সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের অনুরোধ জানায় বার্সা। গত এপ্রিলের শেষ দিকে ‘অসপূর্ণ কাজ শেষ করতে বার্সায় থেকে যাওয়া’র ঘোষণা দেন জাভি।

 

কোচ জাভি হার্নান্দেসকে বরখাস্ত করলো বার্সেলোনা

 

কিন্তু দল গঠন নিয়ে মতবিরোধ তৈরি হওয়ায় বার্সা কর্মকর্তারা চটে গিয়ে ক্লাব সভাপতিকে চাপ দেন। তারই ফলস্বরূপ বরখাস্ত হলেন জাভি।যেকোনো সময়, যেকোনো পরিস্থিতিতে বার্সার আবারও তাঁকে প্রয়োজন পড়লে পাশে থাকবেন, সেটিও নিশ্চিত করেছেন জাভি, ‘খেলোয়াড় বা কোচের আগে আমি একজন বার্সেলোনা-ভক্ত এবং ক্লাবের জন্য যেটা সবচেয়ে ভালো, আমি সেটাই চাই। যেকোনো পরিস্থিতিতে তারা আমাকে পাশে পাবে।’

আরো দেখুনঃ

Leave a Comment