মহেন্দ্র সিং ধোনি [ Mahendra Singh Dhoni ] কতটুকু সাহায্য করতে পারবেন কোহলিদের ?

মহেন্দ্র সিং ধোনি, মহেন্দ্র সিং ধোনী [ Mahendra Singh Dhoni ] কতটুকু  সাহায্য করতে পারবেন কোহলিদের ? : মহেন্দ্র সিং ধোনি নামটা বরাবরই চর্চায় থাকে হোক সেটা খেলার মাঠে অথবা মাঠের বাইরে। এবার ভারতের টিম মেন্টরের ভূমিকা পালন করবেন তিনি।

ধোনি আইপিএল ছাড়া সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন অনেক আগেই। কিছুদিন আগে তার দল চেন্নাই সুপার কিংসকে শিরোপা জিতেছেন, আর এখন সংযুক্ত আরব আমিরাতে ভারতীয় দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন দলকে চাপমুক্ত রাখার জন্য।

মহেন্দ্র সিং ধোনি
মহেন্দ্র সিং ধোনি

মাঠের বাইরে থেকে দলকে উজ্জীবিত করার জন্য তাকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে| এর আগে ২০০৪ সালে ভারতীয় দলকে উজ্জীবিত করার জন্য পরামর্শক হিসেবে কাজ করেছিলেন সুনীল গাভাস্কার। এবার সেই দায়িত্ব পালন করার জন্য ভারতীয় দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

ধোনি জানেন কীভাবে টুর্নামেন্ট জিততে হয়। তিনি ড্রেসিংরুম থেকে এবার বিরাটদের পথপ্রদর্শক হবেন। বিরাট এবং ধোনি একসঙ্গে ভারতের হয়ে অনেক ম্যাচ জিতেছেন এবং তারা একে অপরকে খুব ভালো করেই চেনেন।

তবে পরামর্শক হিসেবে কাজ করার জন্য মহেন্দ্র সিং ধোনি বিসিসিআই থেকে কোন অর্থ নেবেন না। এজন্য বিসিসিআই তরফ থেকে ধোনিকে ধন্যবাদ জানানো হয় ।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে বিরাট কোহলি দের কতটুকু সাহায্য করতে পারবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি [ Mahendra Singh Dhoni ] ?

মহেন্দ্র সিং ধোনির সর্বোচ্চ তার অভিজ্ঞতা দলের মধ্যে ভাগাভাগি করে নিতে পারবেন কিন্তু তা শুধু মাঠের বাইরে থেকে। এব্যাপারে বিশ্বকাপ শুরুর আগে কোহলিদের কে সতর্ক করেছেন একসময়ে ভারতের পরামর্শক হিসেবে কাজ করার সুনীল গাভাস্কার।

sunil gavaskar মহেন্দ্র সিং ধোনি [ Mahendra Singh Dhoni ] কতটুকু সাহায্য করতে পারবেন কোহলিদের ?
সুনীল গাভাস্কার

সুনীল গাভাস্কার বলেন  “মহেন্দ্র সিং ধোনিকে পরামর্শক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করাটা ভারতীয় দলের জন্য খুবই ভালো হয়েছে কিন্তু পরামর্শকের ভূমিকা ড্রেসিংরুমের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। মাঠে নেমে পরামর্শক কিছু করতে পারবেন না।তবে ডেসিংরুমে পরামর্শ অবশ্যই ভূমিকা রাখতে পারে। টি-টোয়েন্টিত দ্রুতগতির খেলা, একটা সঠিক সিদ্ধান্ত খেলার দিক পাল্টে দিতে পারে। আর এই কাজটা খুব ভালো ভাবে করতে জানেন ধোনি, এতে ভারতের লাভ হবে।“

২৪ অক্টোবর আজ দুবাইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি মাচের মাধ্যমে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে ভারত। এই ম্যাচের চাপ ও গুরুত্ব কতটুকু মহেন্দ্র সিং ধোনি তা খুব ভালোভাবেই জানেন। দলকে এই চাপমুক্ত রাখার জন্যই কাজ করবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি কিন্তু তা মাঠের বাইরে থেকে।

মাঠের চাপ সামাল দিয়ে ম্যাচ জিততে পারবেন কি না তা নির্ভর করবে কোহলিদের উপর। ইতিমধ্যেই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ ঘিরে অনেক উত্তেজনা ও বাকযুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে।

মহেন্দ্র সিং ধোনি
মহেন্দ্র সিং ধোনি কতটুকু সাহায্য করতে পারবেন কোহলিদের?

পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার তানভীর আহমেদ দাবি করেছেন যে টিম ইন্ডিয়া ২০২১ টি -টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চাপের মধ্যে রয়েছে, সে কারণেই তারা টুর্নামেন্টের জন্য সাবেক অধিনায়ক এমএস ধোনিকে মেন্টর হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

খেলা শুরু হবে আজ রাত ৮ টায় কিন্তু তার আগেই টুইটারে দুই দেশের সমর্থকদের মধ্যে লড়াই শুরু হয়ে গিয়েছে। সাবেক ক্রিকেটারদের আলোচনা-সমালোচনা, ভক্তদের বাকযুদ্ধ, উত্তেজনা সব মিলিয়ে যেন আজকের ম্যাচে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অলিখিত ফাইনালে মুখোমুখি হবে উপমহাদেশে দুই শক্তিশালী দল ভারত ও পাকিস্তান।

কিন্তু পরিসংখ্যানে পিছিয়ে আছে পাকিস্তান। টি-টোয়েন্টি অথবা ওয়ানডে বিশ্বকাপ কোনোটাতেই ভারতের হারাতে পারেনি পাকিস্তান। বিশ্বকাপে ভারতের মুখোমুখি যতবার পাকিস্তান হয়েছে ততবারই তাদের পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে। কোন বিশ্বকাপ আসরে ভারতকে আজ পর্যন্ত হারাতে পারেনি পাকিস্তান।

কিন্তু পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম ভারতকে সতর্ক করে বলেন “সেদিন ভুলে যান ।এবার আমরা জিতব”

এদিকে বিরাট কোহলি বলেছেন “অতীতে কী হয়েছে সেদিকে আমার কোন নজর নেই। এই ম্যাচ আমার কাছে অন্যান্য ম্যাচের মতই। এখানে কোন ভিন্নতা দেখছিনা স্টেডিয়ামের পরিবেশটা কিছুটা ভিন্ন। কিন্তু আমাদের খেলার ধরন, প্রস্তুতি ও মানসিকতায় কোন ভিন্নতা নেই।“

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের পরিসংখ্যান : ওয়ানডে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারত ৭-০ ব্যবধানে এগিয়ে ভারত এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের সেই রেকর্ড ৫-০।

সম্ভাব্য একাদশ (ভারত): ১) রোহিত শর্মা, ২) কেএল রাহুল, ৩)বিরাট কোহলি, ৪)সূর্যকুমার যাদব, ৫) পান্ত ((উইকেটরক্ষক), ৬) হার্দিক পান্ডিয়া, ৭) রবীন্দ্র জাদেজা, ৮) রবিচন্দ্রন অশ্বিন/বরুণ , ৯) ভুবনেশ্বর কুমার/শার্দুল ঠাকুর, ১০) মোহাম্মদ শামি, ১১) জসপ্রিত বুমরাহ

সম্ভাব্য একাদশ (পাকিস্তান): ১) বাবর আজম (অধিনায়ক), ২) মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), ৩) ফখর জামান, ৪) মোহাম্মদ হাফিজ, ৫)শোয়েব মালিক/হায়দার আলী, ৬) আসিফ আলী, ৭)শাদাব খান, ৮) ইমাদ ওয়াসিম, ৯) হাসান আলী,১০) হারিস রউফ, ১১) শাহীন আফ্রিদি

 

( লেখকঃ মঞ্জুরুল বাসার তমাল, স্পোর্টস গুরুকুল )

আমাদের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য আমাদের “যোগাযোগ” আর্টিকেলটি ভিজিট করুন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সম্পর্কে আরও পড়ুন:

 

 

 

মন্তব্য করুন