রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে নারী হেনস্তার অভিযোগ

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক কিংবদন্তী ফুটবলার রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে নারী হেনস্তার অভিযোগ  উঠেছে। আদালতে রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে তাঁর প্রাক্তন বান্ধবী কেট গ্রেভিল দাবি করেছেন, একসঙ্গে নয়জন মহিলার সঙ্গে জোর করে শারীরিক সম্পর্ক করতেন তিনি।

 

          রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে নারী হেনস্তার অভিযোগ

 

যার কারণে, চরম বিপদে পড়েছেন সাবেক ইউনাইটেডের সাবেক কিংবদন্তী ফুটবলার রায়ান গিগস। এর আগেই তাঁর বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছিলেন প্রাক্তন বান্ধবী কেট গ্রেভিল। তবে, এবার কেটের সঙ্গে সম্পর্ক থাকাকালীন সময়ে আরও আট মহিলার সঙ্গে গিগসের প্রেম ছিল বলে অভিযোগ করেন গ্রেভিল এবং সেই নয় মহিলাকেই গিগসের প্রবল শারীরিক চাহিদা মেটাতে হত বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে নারী হেনস্তার অভিযোগ
রায়ান গিগস

তিন বছর ধরে নিজের বান্ধবীকে শারীরিক নির্যাতন করার অভিযোগ উঠে ওয়েলেস তথা ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের কিংবদন্তি প্রাক্তন ফুটবলার রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে। এই অভিযোগে কোর্ট থেকে জামিনও পান তিনি। ২০১৭ সাল থেকেই বান্ধবি গ্রেভিসের সাথে সম্পর্কের অবনতি হতে শুরু করে রায়ানের।

2 1 রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে নারী হেনস্তার অভিযোগ

এরপর থেকেই রায়ানের বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ আনতে শুরু করেন গ্রেভিস। ১৯৯০ সালে সর্বপ্রথম ম্যানইউর হয়ে চুক্তি সই করেন রায়ান গিগস। ম্যানইউর জার্সি গায়ে ৭০০টিরও বেশী ম্যাচ খেলেছেন গিগস।

রায়ান গিগসের বিরুদ্ধে নারী হেনস্তার অভিযোগ
বেঞ্জামিন মেন্ডি

গিগস ছাড়াও, নারী নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে ফরাসি ফুটবলার বেঞ্জামিন মেন্ডির বিপক্ষে।মেন্ডির বিরুদ্ধে সাত জন নারীকে ধর্ষণ ও লাঞ্ছনার অভিযোগে উঠেছে যাতে দোষী সাব্যস্ত হলে তাঁর ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যেতে পারে।

মেন্ডি ২০১৭ সালে ফ্রেঞ্চ দল মোনাকো থেকে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেন্টার সিটিতে যোগ দিয়ে তাদের হয়ে মোট ৭৫ ম্যাচ খেলেছেন। তিনি, ফ্রান্সের হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্যও ছিলেন।

আরো পড়ুনঃ 

মন্তব্য করুন