সব নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত

সব নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত : পুরুষ ক্রিকেট বিশ্বকাপের আগেই মাঠে গড়িয়েছিল আইসিসি নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপ। সর্বপ্রথম ১৯৭৩ সালে, ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয়েছিল নারী-ক্রিকেট-বিশ্বকাপ। ২০০৫ সালের আগ পর্যন্ত আইসিসি নারী-ক্রিকেট বিশ্বকাপ আইডব্লিসিসির অধীনে অনুষ্ঠিত হতো। কিন্তু, ২০০৫ সালে আইডব্লিসিসি এবং আইসিসি সম্মিলিতভাবে কাজ শুরু করলে , তখন থেকে আইসিসির অধীনেই নারী -ক্রিকেট বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়।

সব নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত:

১৯৭৩ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপের সর্বপ্রথম এবারই অনুষ্ঠিত হয়। রাউন্ড রবিন লীগ পদ্ধতিতে খেলা এ বিশ্বকাপে মোট ৬টি দল অংশগ্রহন করে।অস্ট্রেলিয়া , নিউজিল্যান্ড, ত্রিনিদাদ এন্ড টোবাগো, জামাইকা , আন্তর্জাতিক একাদশ এবং ইংল্যান্ডের মধ্যে হওয়া এ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড এবং রানার্স আপ হয় অস্ট্রেলিয়া।

সব নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত
প্রথম নারী-ক্রিকেট-বিশ্বকাপ ট্রফি

সে বিশ্বকাপে ১২ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি ছিলেন ইংল্যান্ড বোলার রোজালিন্ড হেগস  এবং ২৬৪ রান করে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন ইংল্যান্ড ব্যাটার এনিদ ব্যাকওয়েল।

১৯৭৮ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

১৯৭৮ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় ভারতে। তবে, ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে এটি দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো। তবে, ক্রিকেট থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা নির্বাসিত হওয়ার কারণে স্বাগতিক হওয়ার সুযোগ পায় ভারত। সে বিশ্বকাপের মাধ্যমেই নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপে অভিষেক হয় ভারতের। এ বিশ্বকাপে ভারতসহ মোট ৬টি দল অংশগ্রহণ করে।

আগের আসরের তুলনায় নতুন দল হিসেবে ভারত, নেদারল্যান্ডস এবং উইন্ডিজ। এ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হয় অস্ট্রেলিয়া এবং রানার্স আপ হয় ইংল্যান্ড। ১৯৭৮ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার মার্গারেরট জেনিংস যিনি পুরো টুর্নামেন্টে সর্বমোট ১২৭ রান করেন এবং ৭ উইকেট নিয়ে পুরো টুর্নামেন্টে ৭ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার শেরিন হিল।

১৯৮২ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

১৯৮২ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় নিউজিল্যান্ডে। এ বিশ্বকাপটিতে মোট ৫ টি দল অংশগ্রহণ করে। এ বিশ্বকাপের প্রতিটি ম্যাচই ত্রিপল রাউন্ড রবিন লীগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হয়। এ বিশ্বকাপের ফাইনালে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের ট্রফি ঘরে তোলে অস্ট্রেলিয়ার নারীরা। সে বিশ্বকাপে ৩৯১ রান করে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন ইংল্যান্ডের জেন ব্রিটিন। এছাড়াও, ২৩ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার লিন ফুলস্টন।

১৯৮৮ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

এ বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় অস্ট্রেলিয়ায়। এ বিশ্বকাপেও মোট ৫টি দল অংশগ্রহণ করে। এ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয় অস্ট্রেলিয়া নারী ক্রিকেট দল। এ বিশ্বকাপে ৪৪৮ রান করে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার লিন্ডসে রিলার এবং ১৬ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি হন অস্ট্রেলিয়ার লিন ফুলস্টন।

১৯৯৩ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

১৯৯৩ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় ইংল্যান্ডে। এ বিশ্বকাপে, আগের আসরগুলোর তুলনায় সবচেয়ে বেশি মোট ৮টি দল অংশগ্রহণ করে। ৮টি দলের মধ্যে ডেনমার্ক নারী ক্রিকেট দলের প্রথম বিশ্বকাপ ছিলো এটি। এ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড এবং রানার্স আপ হয় নিউজিল্যান্ড।

১৯৯৭ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

১৯৯৭ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় ভারতে। ১১টি দলের অংশগ্রহণে এই বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া নারী ক্রিকেট দল নিজেদের চতুর্থ বিশ্বকাপ ট্রফি ঘরে তোলে। এ বিশ্বকাপে রানার্স আপ হয় নিউজিল্যান্ড।

২০০০ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০০০ সালের নারী-ক্রিকেট বিশ্বকাপে প্রথমবারের নারী-ক্রিকেট বিশ্বকাপ ট্রফি ঘরে তোলে নিউজিল্যান্ড। এ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটার কারেন রোল্টন এবং সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি অস্ট্রেলিয়ার কারমেই ম্যাসন।

২০০৫ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

২০০৫ সালে প্রথমবারের মতো নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ আয়োজন করে দক্ষিণ আফ্রিকা। সে বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠে ভারত নারী ক্রিকেট দল। তবে, সে বিশ্বকাপে পঞ্চমবারের মতো নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ শিরোপা ঘরে তোলে অস্ট্রেলিয়া।

নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত
২০০৫ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে অস্ট্রেলিয়া

২০০৯ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত ২০০৯ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপে তৃতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড এবং রানার্স আপ হয় নিউজিল্যান্ড। এ বিশ্বকাপে মোট ৮টি দল অংশগ্রহণ করে।

নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত
২০০৯ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপের ট্রফি হাতে ইংল্যান্ড

 

২০১৩ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

২০১৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপে ষষ্ঠবারের মতো শিরোপা জেতে অস্ট্রেলিয়া। ফাইনালে উইন্ডিজকে ১১৪ রানে হারায় তারা। এ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন নিউজিল্যান্ডের সুজি বেটস এবং সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি অস্ট্রেলিয়ার মেগান শুট।

নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত
২০১৩ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে অস্ট্রেলিয়া

২০১৭ নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপঃ

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৭ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয় স্বাগতিক ইংল্যান্ডই। ফাইনালে ভারতকে ৯ রানে হারায় তারা। এ বিশ্বকাপে ৪১০ রান করে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন ইংল্যান্ডের ট্যামি বিউমন্ট। এছাড়াও, সর্বোচ্চ ১৫ উইকেট নিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার ড্যান ভান নিকার্ক।

নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত
২০১৭ নারী ক্রিকেট-বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে ইংল্যান্ড

এখন পর্যন্ত, নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৬বার চ্যাম্পিয়ন  হয়েছে অস্ট্রেলিয়া এবং ৪বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ইংল্যান্ড। এছাড়াও, ১বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নিউজিল্যান্ড।

আরও পড়ুন:

“সব নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের আদ্যোপান্ত”-এ 2-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন